ওয়ার্ডপ্রেস ড্যাশবোর্ড সেটিংসের Discussion Settings এর কাজ কি ?

গত পর্বে আমরা ওয়ার্ডপ্রেস সেটিংস এর মেনুসমূহের মধ্যে রিডিং সেটিংস (Reading Settings) এর কাজ কি এবং কিভাবে সম্পাদন করা যায় এটা নিয়ে আলোচনা করেছিলাম ।

ওয়ার্ডপ্রেস ড্যাশবোর্ড সেটিংসের Reading Settings এর কাজ কি ?

আজকে আমরা ওয়ার্ডপ্রেস সেটিংস এর মেনুসমূহের মধ্যে ডিসকাশন সেটিংস (Discussion Settings) নিয়ে আলোচনা করব ।

ওয়ার্ডপ্রেস Discussion Settings

Settings → Discussion এই লিঙ্কে গেলে নিচের ছবির মত একটা পেজ ওপেন হবে ।

ওয়ার্ডপ্রেস টিউটোরিয়াল

Settings → Discussion পেজে কিছু গুরুত্বপুর্ন ফর্ম আছে । যেগুলো আপনাকে পূরন করতে হবে ।

সেই ফর্ম গুলোর কাজ নিচে বর্ননা করা হল ।

Default article settings

 

    • Attempt to notify any blogs linked to from the article : পাবলিশ করা পোষ্টের লিংক অন্য কোনো ব্লগে নোটিফিকেশন আকারে (ping) পাঠাতে চাইলে এই বক্সে টিকমার্ক দিন ।
    • Allow link notifications from other blogs (pingbacks and trackbacks) :যদি অন্য কোন সাইট আপনার সাইটের আর্টিকেল ব্যবহার করে আপনাকে নোটিফিকেশন দিবে যদি এই বক্সে টিকমার্ক দেন ।
    • Allow people to post comments on new articles : নতুন পোষ্টে যদি সাধারন ব্যবহারকারীদের কমেন্ট করতে দিতে চান তাহলে এই বক্সে টিকমার্ক দিন ।
  • Other Comment Settings

 

      • Comment author must fill out name and e-mail :যাদের ব্লগে অ্যাকাউন্ট নেই, মন্তব্য করতে চাইলে তাদের অবশ্যই নাম এবং ইমেইল অ্যাড্রেস দিয়ে কমেন্ট করতে হবে ।
      • Users must be registered and logged in to comment :এটা সিলেক্ট করা থাকলে অনিবন্ধিত ইউজার মন্তব্য করতে পারবেনা ।
      • নিবন্ধিত ব্যবহারকারীরও লগইন করা থাকতে হবে মন্তব্য করতে হলে ।
      • Automatically close comments on articles older than days : এই অপশনটি চেক করা থাকলে আপনার ব্লগে পোষ্টে প্রকাশের ১৪ দিন পরে কেউ আর মন্তব্য করতে পারবে না ।
      • তবে ইচ্ছা করলেই আপনি দিনসংখ্যা বাড়াতে বা কমাতে পারবেন ।
      • Enable threaded (nested) comments :কমেন্টকে শ্রেনীবদ্ধ করে দেখাতে এখান থেকে আপনার পছন্দের সংখ্যা সিলেক্ট করুন । সর্বোচ্চ ১০ পর্যন্ত দিতে পারবেন ।
      • নিচের ছবি দেখলে সবই বুঝতে পারবেন ।

ওয়ার্ডপ্রেস টিউটোরিয়াল

    • Break comments into pages with top level comments per page and the page displayed by default : এই বক্সে টিকমার্ক দিলে প্রথম ৫০ টি মন্তব্য উক্ত পোস্টের প্রথম পাতায় দেখাবে এবং ৫১ নং কমেন্ট থেকে দ্বিতীয় পাতায় চলে যাবে এবং শেষে করা মন্তব্যগুলি আগে দেখতে চাইলে ড্রপডাউন থেকে last সিলেক্ট করে দিন আর প্রথমে করা মন্তব্যগুলি আগে দেখতে চাইলে first সিলেক্ট করুন ।
    • older দিলে পুরানো মন্তব্যগুলি আগে দেখাবে এবং newer দিলে নতুনগুলি আগে দেখাবে ।
  • Email me whenever

    • Anyone posts a comment : এই অপশনে টিকমার্ক দিলে আপনার ব্লগের কোনো পোষ্টে পাঠকরা মন্তব্য করলে সেটার নোটিফিকেশন আপনার ইমেইলে চলে যাবে ।
    • A comment is held for moderation : এই অপশনে টিকমার্ক করলে আপনার ব্লগের পোষ্টে পাঠকরা মন্তব্য করলে সেটার নোটিফিকেশন আপনার ইমেলে চলে যাবে কিন্তু সেটা সরাসরি ব্লগে প্রকাশ হবে না ।
    • পোস্টের লেখক সেই মন্তব্য প্রকাশের অনুমতি দিলে তবেই শুধু মন্তব্যটি পোস্টে প্রকাশ পাবে ।

Before a comment appears

1.Comment must be manually approved :এই অপশনে টিক দেয়া থাকলে, পাঠকদের প্রত্যেকটি মন্তব্য আপনার অনুমোদন করতে হবে তারপর সাইটে পাবলিশ হবে ।

  1. 2.Comment author must have a previously approved comment : আপনার ব্লগের যেকোনো পোষ্টে পাঠকের ১টি মন্তব্য এডমিন থেকে অনুমোদন পেয়ে থাকলে পরের মন্তব্যগুলো প্রকাশের জন্য আর অনুমোদনের প্রয়োজন হবে না যদি এই অপশনে টিকমার্ক দেয়া থাকে ।

1.Comment Moderation : আপনি এখানে যে সংখ্যা দিবেন তার থেকে বেশি লিংক সমৃদ্ধ মন্তব্য করলে সেটা মডারেশনের অপেক্ষায় থাকবে ।

2.Comment Moderation এর পরে থাকা বক্সে কি লিখবেন : যখন কোনো একটি মন্তব্যের বিষয়বস্তু, নাম, ইউআরএল, ইমেইল, অথবা আইপিতে যদি নিচের বক্সে আপনার দেয়া তালিকার কোনো শব্দ থাকে, তখন সেটি মডারেশন তালিকায় জমা হবে ।

এখানে কোনো শব্দের ভেতরের শব্দের মিলও ধরা হবে । যেমন : “প্রেস” মিলে যাবে “ওয়ার্ডপ্রেস”-এর সাথে ।

 

3.Comment Blacklist :এটা হল মন্তব্যের কালো বা ব্লাকলিস্ট । যখন কোনো একটি মন্তব্যের বিষয়বস্তু, নাম, ইউআরএল, ইমেইল, অথবা আইপিতে যদি নিচের বক্সে আপনার দেয়া তালিকার কোনো শব্দ থাকে, তখন সেটি স্প্যাম হিসেবে ধরা হবে ।

এখানে কোনো শব্দের ভেতরের শব্দের মিলও ধরা হবে ।

    • যেমন : “টেকটিউটর” মিলে যাবে “বিডি”-এর সাথে ।
  • Avatar Display : এই অপশনে টিকমার্ক দিলে ব্যবহারকারীর Avatar মানে প্রোফাইল পিকচার তার নামের পাশে দেখাবে আর টিকমার্ক না দিলে নামের পাশে কোনো Avatar দেখাবেনা ।

Maximum rating

      • G :এই বাটনে ক্লিক করলে ইউজারের Avatar সবাই দেখতে পাবে ।
      • PG : এই বাটনে ক্লিক করলে ১৩ এর চেয়ে বেশী বয়সের ব্যবহারকারীরাই শুধু Avatar দেখতে পারবে ।
      • R :এই বাটনে ক্লিক করলে ১৭ এর চেয়ে বেশী বয়সের ব্যবহারকারীরাই শুধু Avatar দেখতে পারবে ।
    • X :এই বাটনে ক্লিক করলে ১৮ এর চেয়ে বেশী বয়সের ব্যবহারকারীরাই শুধু Avatar দেখতে পারবে ।
  • Default Avatar :এই অপশনে কয়েক ধরনের Avatar পাবেন, যে Avatar সিলেক্ট করবেন সেটা ব্যবহারকারীর নামের পাশে দেখাবে ।

ওয়ার্ডপ্রেস টিউটোরিয়াল পেতে আমাদের সাথেই থাকুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.