যে চারটি কাজ করার জন্য লিনাক্স এবং ওপেন সোর্স সফটওয়্যার যথেষ্ট নয়

বিশ্বে ওপেন সোর্স দিনে দিনে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠছে বিশেষ করে আমাদের দেশে মনে হয় আজকাল একটু বেশি নাম ডাক শোনা যাচ্ছে। এর কারন হল ওপেন সোর্স পন্য গুলোর লাইসেন্স সবার জন্য উন্মুক্ত থাকে।

এখানে সফটওয়্যারই নয় এমনকি হার্ডওয়্যার গুলোর লাইসেন্সও সবার জন্য উন্মুক্ত (আপনি যদি না জানেন ওপেন সোর্স সফটওয়্যার কি তাহলে ওপেন সোর্স সফটওয়্যার কি? ওপেন সো র্স এবং ফ্রি সফটয়্যারের মধ্যে পার্থক্য এই লিংক থেকে ঘুরে আসুন আশা করি বুঝতে পারবেন)।

আমাদের মদ্ধে অনেকেই অনেক কাজের জন্য ওপেন সোর্স সফটওয়্যার ব্যবহার করে থাকি, ব্যবহার করার পর অনেকের অভিজ্ঞতা হয় মধুর আবার অনেকের অভিজ্ঞতা হয় তিক্ত। কারো কারো অভিজ্ঞতা এতটাই খারাপ হয় যে তারা নিজে তো ব্যবহার করেই না বরং অন্যকেও ব্যবহার করতে নিষেধ করে।

কিন্তু বাস্তবে ওপেন সোর্স সফটওয়্যারের অনেক ভাল এবং উপকারি দিক আছে যার তুলনায় খারাপ এবং অপকারি দিক খুবই নগন্ন।

মূল কথা হল সকল কাজের জন্য ওপেন সোর্স সফটওয়্যার নয়। এটি মুলত আজকের টপিক, আজকে আমি লিখব কোন কোন কাজের জন্য ওপেন সোর্স সফটওয়্যার নয়।

লিখাটি পরার পর আশা করি এটি ব্যবহারে আর কারো খারাপ অভিজ্ঞতা হবেনা।

১। ওপেন সোর্স গের্মিং

ওপেন সোর্সে খারাপ অভিজ্ঞতার কারন বলতে গেলে প্রথমেই বলতে হবে গেমিংএর কথা, কারন পৃথিবিতে এত মানুষ গেমিংএ আসক্ত বা গেম খেলে অভ্যস্থ তা কল্পনারও বাহিরে। এতগুলো গেমারদের মদ্ধে অনেকেই হয়ত লিনাক্স অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করে / করতে চায় কারন, লিনাক্স ওপেন সোর্স ওপারেটিং সিস্টেম হবার কারনে এর সকল এপস এবং গেমসও ওপেন সোর্স অর্থাৎ এই গেমস গুলো ফ্রিতে পাবেন এবং কাস্টমাইজও করতে পারবেন।

আপনি যদি একজন গেমার হয়ে থাকেন এবং শুধু মাত্র গেম খেলার জন্য লিনাক্স / ওপেন সোর্সে আসতে চান তাহলে আপনি ভুল করবেন এবং আপনার অভিজ্ঞতাও হবে তিক্ত।

খুব কম সংখক ডেভেলপারই আছে যারা ওপেন সোর্স গেমস ডেভেলপ করে থাকেন এবং অধিকাংশ ক্ষেত্রে গেমসগুলোর মান খুব একটা ভাল হয়না কারন তারা গেমসগুলো ডেভেলপ করেন শুধু মাত্র সখের বসে এবং এই গেমসগুলো ডেভেলপ করে তারা কোন লাভ পায়না এবং তাদের কোন উপার্জনও হয়না। আপনি যদি অ্যাাকশন, শুটিং, রেসিং ইত্যাদি গেমের মত গেম খেলে অভ্যস্ত হন তাহলে ওপেন সোর্স গেমস গুলোই হবে আপনার জীবনের সবচেয়ে বাজে গেমিং অভিজ্ঞতা।

তবে বর্তমানে ওপেন সোর্সের যুগ অনেক উন্নত হয়েছে, অনেক ডেভেলোপার অনেক ভাল ভাল গেমস ডেভেলপ করছে।

আবার অনেক ক্লজ সোর্স, যেমন উইন্ডোজের গেমসগুলোও লিনাক্সে সাপোর্ট করানো যায়।

২। প্রোফেশনাল মাল্টিমিডিয়া কাজ

লিনাক্সে অনেক ভিডিও ইডিটর আছে যার মাদ্ধমে আপনি অনেক ভাল ভাল ভিডিও বানাতে পারবেন।

ব্লেনডার নামক একটি এ্যাপ আছে যার দ্বারা অনেক সুন্দর থ্রিডি গ্রাফিক্সেরও কাজ করা যায়। এমনকি Big Buck Bunny এবং Sintel এনিমেটেড শর্ট মুভিও দুটিও তৈরি করা হয়েছে এই ওপেন সোর্স ইডিটর দিয়ে। আবার অনেক ইউটুবারও এগুলো ব্যবহার করে ভিডিও ইডিট করেন। কিন্তু এই ভিডিও ইডিটিং টুলস গুলো ঠিক সেই টুলস নয় যা আপনি খুজছেন।

অনেক কিছুন আছে যা আপনি এই ভিডিও ইডিটিং টুলস গুলতে পাবেন না।

৩। স্কাইপ

ভিডিও চ্যাট করার জন্য ক্লোজ সোর্স সফটওয়্যারই লাগবে এমন কোন কথা নেই।

লিনাক্সেও অনেক ভিডিও ইডিটর আছে যা দিয়ে অনেক ভাল ভিডিও চ্যাটিং করা যায়। Jitsi এমনই একটি ভিডিও চ্যাটিং সফটওয়্যার যার দ্বারা ভিডিও কল করা যায় আবার ভিডিও কনফারেন্সও করা যায়।

কিন্তু এখনো অনেক মানুষ স্কাইপ ব্যবহার করে, হয়ত আপনার আত্নিয় স্বজন স্কাইপ ব্যবহার করেনা, ইমু, ভাইবার ইত্যাদি ব্যবহার করে, তবুও প্রোফেশনাল কাজের জন্য স্কাইপ লাগবেই বলা যায়।

আপনি যদি ফ্রিল্যান্সার হন তাহলে আপনার ক্লায়েন্টদের সাথে কথা বলতে স্কাইপ লাগবে।

কিন্তু প্রধান সমস্যা হল ওপেন সোর্স স্কাইপ খুব একটা ভাল কাজ করেনা, যদিও লিনাক্স টেকনিক্যালি স্কাইপি সাপর্ট করে কিন্তু আপনি সেই অভিজ্ঞতা পাবেন না বা যা আপনি ক্লোজ সোর্সে পাবেন।

৪। ক্লাউড স্টোরেজ

ক্লাউড স্টোরেজের মাদ্ধমে আমরা যেকোন ফাইল অনলাইন স্টোরেজে সেফ ভাবে রাখতে পারি আবার চাইলে এক পিসি থেকে অন্য পিসিতে নিতেও পারি, এমনকি পিসি দুটি দুই অপারেটিং সিস্টেমের হলেও কোন সমস্যা নেই।

এখন প্রায় সকল অপারেটিং সিস্টেমেই ক্লাউড স্টোরেজ থাকে।

লিনাক্সেও ক্লাউড স্টোরেজ সাপোর্ট করে। লিনাক্স থেকে ড্রপবক্স এ্যাক্সেস করতে পারবেন কিন্তু হয়তবা সেটি ব্যবহার করে সেই ভাললাগাটা উনুভব করতে পারবেন না যা আপনি উইন্ডোজে পাবেন। এছাড়াও লিনাক্সের ড্রপবক্স ওপেন সোর্সনা।

শেষ কথাঃ উপরের এই চার খেত্র ছাড়া আর কথাও হয়ত ওপেন সোর্সে খারাপ অভিজ্ঞতার সম্মুখিন হবেনা। আর সব কিছুরই খারাপ কিছু দিক থাকে। ওপেন সোর্সে লিনাক্সের মত ওপারেটিং সিস্টেম পেয়েছি এটাই অনেক। আর এখন অনেক ডেভেলপাররাই লিনাক্সে কাজ শুরু করেছে। খুব শুঘ্রই হয়ত চার সংখাটি দুই এ নেমে আসবে।

Leave a Reply