যেভাবে ব্লগস্পট সাইটে গুগল অ্যাডসেন্স পাবেন। দ্রুত গুগল অ্যাডসেন্স অ্যাপরোভাল ট্রিক ২০১৯



 গুগল অ্যাডসেন্স পাওয়া প্রত্যেক ব্লগারের স্বপ্ন। বর্তমানে গুগলের পলেসি কিছুটা কঠিন করা হয়েছে। প্রত্যেক নতুন ব্লগাররা মনে করেন যে গুগল অ্যাডসেন্স পাওয়া অনেক কঠিন। কিন্তু বিশ্বাস করুন, আপনি যতটা কঠিন মনে করছেন ততোটা কঠিন নয়। আজকে আমি এই পোস্টে আপনাদের আসল সত্য বলব যে,

কিভাবে ব্লগস্পট সাইটে গুগল অ্যাডসেন্স পাবেন।


যদিও গুগলের নিয়ম-কানুন বর্তমানে অনেক কঠিন করা হয়েছে,কিন্তু আজকের এই পোস্ট পড়ার পর আপনার আর গুগল অ্যাডসেন্স অ্যাপরোভাল নিয়ে অন্য কোন পোস্ট পড়া লাগবে না।

নোটঃ যেহেতু আজকের টপিক ব্লগস্পট সাইটে অ্যাডসেন্স অ্যাপরোভাল নিয়ে, কিন্তু যারা অন্য প্লাটফর্ম ব্যবহার করছেন তাদের উপকারে আসবে।

 আমরা সবাই জানি যে, ব্লগস্পট হল গুগলের প্লাটফর্ম,তাই ব্লগস্পট সাইটে গুগল অ্যাডসেন্স পাওয়া অন্য প্লাটফর্ম এর চেয়ে সহজ।  অ্যাডসেন্স পেতে হলে আপনাকে আবেদন করার আগে কিছু কাজ করতে হবে। যদি আপনি এই কজগুলো করেন তাহলে অবশ্যই অ্যাডসেন্স পাবেন। আর আবেদন করার আগে আপনার ব্লগের বয়স ৬ মাস হলে ভাল হয়। 

গুগল অ্যাডসেন্সে আবেদন করার আগে যে ৮টি কাজ অবশ্যই করতে হবে


#১ একটি কাস্টম ডোমেইন কিনতে হবে
আপনাকে অবশ্যই একটি মাস্টার ডোমেইন কিনতে হবে যেমন. .com,.net,.org. ইত্যাদি। যদিও   blogspot ডোমেইন দিয়ে অ্যাডসেন্স পাওয়া যায় তবে এবং সাইট রয়েছে যারা blogspot সাবডোমেইন এ অ্যাডসেন্স পেয়েছেন। তবে এটা এতো সোজা নয় এবং ব্লগের ভবিষ্যৎ এবং seo এর কথা চিন্তা করে মাস্টার ডোমেইন নেয়াই ভাল।

#২ ব্লগে about us, contact us, privacy, Disclaimer, এই চারটি পেইজ অবশ্যই থাকা লাগবে।

#৩ ব্লগের ডিজাইন ক্লিন এবং রিসপন্সিভ হতে হবে।

#৪ ১০-২০ সুন্দর পোস্ট করুন। কোথাও থেকে পোস্ট কপি করবেন না। সব পোস্ট নিজে লিখবেন।কোন অবৈধ বিষয় নিয়ে লিখবেন না কারন গুগল এইসব পছন্দ করে না। 

#৫ কপিরাইট যুক্ত ইমেজ ব্যবহার করবেন না।
  আমি এখানে কয়েকটি ওয়েবসাই নিয়ে লিখেছি যেখান থেকে আপনি ফ্রী ইমেজ ডাউনলোড করতে পারেন। যদি কোন কপিরাইট যুক্ত ইমেজ থাকে তাহলে এখনই ব্লগ থেকে রিমুভ করে দিন।   

#৬ আপনার সাইটটি গুগল ওয়েবমাস্টারে সাবমিট করুন এবং ঠিকমত ইন্ডেক্স হচ্ছে কিনা দেখে নিন।

#৭ আগে থেকে যদি অন্য কোন ওয়েবসাইটের অ্যাড ব্যবহার করে থাকেন রিমুভ করে দিন।

#৮ আবেদন করার সময় ফেইক নাম ব্যবহার করবেন না।

এইকাজগুলো করা হয়ে গেলে আবেদন করুন।

যদি একবারে না হয় তাহকে আশা ছাড়বেন না।  যে সমস্যার কারনে আবেদন গ্রহন করা হয়নি সেটা সমাধান করুন এবং আবার চেস্টা করুন।

Post a Comment

0 Comments