যেভাবে ব্লগিং শুরু করবেন এবং প্রতিমাসে হাজার ডলার ইনকাম করবেন (ব্লগিং গাইড)

ব্লগিং শুরু করতে এবং ব্লগিং থেকে আয় করতে চান।।



অলাইন ক্যারিয়ার শুরু করার এটি একটি ভাল পদ্ধতি এবং এটি আপনাকে নতুন উচ্চতায় পৌছাতে সাহায্য করতে পারে।
 আপনি ব্লগিং শুরু করার অনেক কারন থাকতে পারে যেমনঃ
 ১.টাকা।
২.খ্যাতি অর্জন করা।
৩.জ্ঞান অন্যদের সাথে শেয়ার করা।

 এছাড়াও অনেক কারন থাকতে পারে।

যখন আপনি ব্লগিং শুরু করবেন তখন অনেক প্রশ্ন থাকতে পারেঃ

  •  কোথায় ব্লগ শুরু করব?
  •  কোন টপিকের উপর শুরু করব? 
  • ডোমেইন নেইম কেমন হওয়া উচিত?
  •  কিভাবে ডোমেইন এবং হোস্টিং কিনব?
  •  কোথা থেকে ডোমেইন এবং হোস্টিং কিনব?
  •  ডোমেইন নেইম এ ব্লগটি কিভাবে ইন্সটল করব? 
  • ব্লগ ডিজাইন। 
  • কিভাবে প্রথম ব্লগ পোস্ট লিখব?
এই পোস্টে আপনি নতুন ব্লগ শুরু করতে সব উত্তর খুজে পাবেন।

তো এককাপ কফি হাতে নিয়ে আর্টিকেলটি পড়া শুরু করুন।  (আপনার নতুন জার্নি শুরু করুন)

ব্লগ শুরু করার স্টেপঃ

১. একটি টপিক বেছে নিন।
২. একটি ব্লগিং প্লাটাফর্ম সিলেক্ট করুন।
৩. ব্লগের জন্য ডোমেইন এবংং হোস্টিং কিনুন।
৪. ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটল করুন(টিউটোরিয়াল নিচে)
৫. ব্লগ ডিজাইন করুন।
৬. সেরা ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগিন ইন্সটল করুন।
৭. আপনার প্রথম ব্লগ পোস্ট লিখুন।
৮. আপনার লেখা সারা বিশ্বে শেয়ার করুন।
৯. ব্লগে মনিটাইজ"monetize" করুন।

এই স্টেপগুলির কিছু স্টেপ এর উত্তর যদি আপনি জানেন তাহলে আপনি পরবর্তী স্টেপ এ যেতে পারেনঃ
পেজ কন্টেন্টঃ

স্টেপ-১ঃ ব্লগের জন্য একটি নাম এবং ডোমেইন নেইম সিলেক্ট করুনঃ
"ডোমেইন নেইম"
 ১. মনে রাখা সম্ভভ।
২. সহজে টাইপ করা যায়।
৩.উচ্চারণ সহজ।

যখন ডোমেইন কিনবেন তখন এই তিনটি সিক্রেট মনে রাখবেন।
ব্লগিং-এ সাকসেস হতে ব্লগ নেইম একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। ব্লগ নেইম হল আপনার ব্লগের ঠিকানা যার মাধ্যমে ভিজিটররা আপনার ব্লগে প্রবেশ করেন।

উদাহরণস্বরূপঃঃ  "www.seratune.com"
যখন আপনি ব্লগস্পটে অথবা ওয়ার্ডপ্রেস এ ব্লগ সাইট খুলবেন তখন আপনি একটি ঠিকানা পাবেন যেমন "name.blogspot.com" অথবা "name.wordpress.com"

কিন্তু একটি কাস্টম ডোমেইন যেমন "seratune.com" যার জন্য আমার প্রতি বছর $১২ প্রদান করতে হয়।

এখানে কিছু নিয়ম রয়েছে যা আপনাকে সেরা একটি ডোমেইন কিনতে সাহাজ্য করবে।
অবশ্যই একটি ".com" ডোমেইন কিনবেন।
ডোমেইন নেইম জেন উচ্চারন এবং টাইপ করা সহজ হয়।
এমন ডোমেইন নেইম কিনবেন না যা ভিজিটরদের বিভ্রান্ত করে।

ডোমেইন কেনার সময় যে বিষয়গুলি এড়িয়ে চলবেনঃ
বেশি বড় ডোমেইন সিলেক্ট করবেন না। অবশ্যই ১২ অক্ষরের নিচে রাখার চেস্টা করবেন।
যেমন "seratune"
"Domain extension"  ব্যবহার করবেন না যেমন
.net,.Org কারন এগুলো গুগল এর র‍্যাংক হতে সমস্যা করে। সবসময় চেস্টা করবেন".com" অথবা ".org" ডোমেইন কিনতে।

স্টেপ-২ঃ ব্লগের জন্য হোস্টিং বেছে নিনঃ
আমি বলব সব সময় নিজের হোস্টিং এ ব্লগিং শুরু করবেন। হোস্টিং হল যেখানে আপনি ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটল করবেন।এই সার্ভার ২৪*৭ অনলাইনে থাকবে এবং আপনার ব্লগের ইমেজ,ব্লগ ডিজাইন সবকিছু এখানে জমা থাকবে। বাংলাদেশে অনেক হোস্টিং প্রোভাইডার রয়েছে যেখান থেকে আপনি বিকাশ ও রকেটের সাহায্য পেমেন্ট করে হোস্টিং কিনতে পারবেন।

Also read; নতুন ব্লগে গুগল অ্যাডসেন্স অনুমোদন ট্রিকস।   

স্টেপ-৩ঃ আপনার ব্লগ সেট আপ করুন

প্রথমে আপনাকে জানতে হবে কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটল করবেন

এখানেই সব শেষ নয়। আপনি প্রথম ব্লগ পোস্ট লেখার আগে কয়েকটি কাজ শেষ করতে হবে।

#১ ব্লগিং প্লাটফর্ম সিলেক্ট করুনঃ
নতুন ব্লগার হিসেবে আপনার একটি প্রশ্ন থাকতে পারে যে কোথায়, কোন প্লাটফর্ম-এ ব্লগিং শুরু করব। আমি বলব ওয়ার্ডপ্রেস এ শুরু করুন কারন, ওয়ার্ডপ্রেস হল জনপ্রিয় এবং ব্যবহার করা অনেক সহজ।  সারা বিশ্বের ৩% সাইট ওয়ার্ডপ্রেস  এর মাধ্যমে তৈরি।

#২ ব্লগিং করার জন্য একটি টপিক বেছে নিনঃ
আপনি কোন বিষয় নিয়ে ব্লগিং শুরু করতে চান আগে সেই সেই সম্পর্কে ভেবে নিন। আমাদের দেশে নতুন ব্লগাররা একাধিক টপিকের উপর ব্লগিং শুরু করতে চায়। কিন্তু এই পদ্ধতি ২০১৯ এ কাজ করবে না।অবশ্যই যে কোন একটি টপিকের উপর ব্লগিং করবেন। ২০১৯ সালে গুগল বলে দিয়েছে যে যারা একাধিক টপিকের উপর ব্লগিং করেন তাদের চেয়ে যার একটি টপিকের উপর ব্লগিং করেন তাদের র‍্যাংকিং ভাল হবে।
তাই একটি টপিকের উপর ব্লগিং করলে খুব সহজে র‍্যাং করার পারবেন।

#৩ ব্লগ ডিজাইন করুনঃ
ব্লগসাইট সুন্দর ভাবে ডিজাইন করা একটি গুরুত্বপূর্ণ কাজ। আপনার সাইট যদি সুন্দর ভাবে ডিজাইন করা হয় তাহলে ভিজিটররা এটি পছন্দ করবে।
ওয়ার্ডপ্রেস সাইট এর জন্য অনেক প্রিমিয়াম থিম রয়েছে যেগুলো সুন্দর ভাবে ডিজাইন করা রয়েছে আপনাকে শুধু ইন্সটল করলেই হবে।

 #৪ যেভাবে ব্লগ থেকে ইনকাম করবেনঃ
ইনকাম করার জন্য অনেক পদ্ধতি রয়েছে। এর মধ্যে সবচেয়ে ভাল হল গুগল অ্যাডসেন্স।

এই আর্টিকেলটি পড়ুন, যেভাবে নতুন ব্লগে গুগল অ্যাডসেন্স পাবেন। 

to be continue...

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ