গুগল অ্যাডসেন্স কি এবং কিভাবে গুগল অ্যাডসেন্স থেকে আয় করবেন

Advertisements

আজকে আমারা গুগল অ্যাডসেন্স কি এবং কিভাবে ইনকাম করবেন।

গুগল এডসেন্স কিভাবে কাজ কর? আয় করতে কি কি লাগে? কিভাবে গুগল এডসেন্স একাউন্ট তৈরি করবেন।

কিভাবে গুগল এডসেন্স পাবেন এই বিষয়ে বিস্তারিত জানব।

বর্তমানে অনলাইনে আয় করার অনেক উপায় এবং মাধ্যম আছে। কেউ কেউ ওয়েব ডিজাইন, ডেভেলপমেন্ট এবং এসইও ইত্যাদির কাজ করে আয় করে থাকেন। আবার কেউ বা ব্লগিং করে নিজের সাইটে অ্যাড বসিয়ে, ভিজিটরদের অ্যাড ক্লিকের মাধ্যমে আয় করে থাকেন।

বর্তমানে অনেক অনলাইন অ্যাড মিডিয়া থাকলেও গুগল অ্যাডসেন্স হচ্ছে সবচেয়ে কার্যকরী এবং নির্ভরযোগ মাধ্যম। গুগল অন্যান্য অ্যাড মিডিয়ার থেকে তাদের পাবলিশারদের পরিমানে অনেক বেশি অর্থ দিয়ে থাকেন।

আজ আমি আপনাদের দেখাবো কিভাবে গুগল অ্যাডসেন্স এর মাধ্যমে অনলাইনে আয় করা যায়।

গুগল এ্যাডসেন্স কি?

একটি ছোট উদাহরণ এর মাধ্যমে খুব সহজে বোঝার চেস্টা করি;

বর্তমান বিশ্বে হাজার হাজার ওয়েবসাইট আছে।কিন্তু সকল ওয়েবসাইটের ভিজিটর নেই।

যেসকল ওয়েব সাইটের ভিজিটর নেই, সেই সকল ওয়েবসাইটের কোনো মুল্য নেই।

কারন কোনো সাইটের মূল লক্ষ্য হলো ভিজিটরকে কোনো বিষয় সম্পর্কে তথ্য দেওয়া, তাই ভিজিটর না থাকলে এ সব তথ্যেরকোনো মূল্য নেই।

তাই ওয়েবসাইটে ভিজিটর আনতে হলে সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন বা এসইও করতে হয়। কিন্তু এসইও একটি দীর্ঘকালীন প্রক্রিয়া প্রায় ৩ থেকে ৬ মাস সময় লাগে।

তাই এসইও অর্থাৎ সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন করা ছাড়া অথবা (এসইও) করা ওয়েবসাইট এ তাৎক্ষনিক ভিজিটর পাওয়ার জন্য গুগল বিজ্ঞাপনের ব্যবস্থা করে | অর্থাৎ কোনো ওয়েবসাইটের লিঙ্ক অন্য ওয়েবসাইটে দিয়ে দেয়।

যখন প্রথম ওয়েবসাইটের কোনো ভিসিটর দ্বিতীয় ওয়েবসাইটির লিঙ্ক দেখতে পায় তখন ওই লিঙ্কে ক্লিক করে তার কাঙ্খিত তথ্যের জন্য দ্বিতীয় ওয়েবসাইটে এ গমন করে এভাবে দ্বিতীয় ওয়েবসাইট গুগল এ্যাডসেন্স ব্যবহার এর মধামে ভিজিটর পায়।

অপর দিকে এভাবে কোনো ওয়েবসাইটে ভিজিটর পাবার জন্য ওয়েবসাইটটির মালিক কে গুগল কে টাকা দিতে হয়। অন্য দিকে গুগল যাদের ওয়েবসাইটে এই বিজ্ঞাপন বসায় তাদের কে ও টাকা দেয়।

উভয় পক্ষকে লাভ দিয়ে গুগল নিজেও কিছু কমিশন রাখে | এই প্রক্রিয়া টি হলো গুগল এ্যাডসেন্স

গুগল অ্যাডসেন্স কিভাবে আয় করবেন?

অ্যাডসেন্স থেকে আয় করার জন্য আপনাক গুগল অ্যাডসেন্স একাউন্ট খুলতে হবে। এই একাউন্ট করার জন্য নিদৃষ্ট কিছু তথ্য দিয়ে অ্যাডসেন্স এর জন্য আবেদন করতে হয়। গুগল ১০ দিন অথবা এর কম সময়ের মধ্যে আপনাকে একটি ইমেইল পাঠাবে। এই ইমেইলে আপনি দেখতে পারবেন, গুগল আপনাকে অ্যাডসেন্স এর অনুমোদন দিয়েছে কি না?

যেভাবে গুগল অ্যাডসেন্স একাউন্ট তৈরি করবেন

গুগল যদি আপনাকে অ্যাডসেন্স এর জন্য অনুমোদন দেয়। তাহলে আপনি আপনার অ্যাডসেন্স অ্যাকাউন্ট লগইন করুন এবং গুগল এর দেওয়া জাভাস্ক্রিপ্ট আপনার সাইটের যেখানে আপনি অ্যাড দেখতে চান! বসিয়ে দিন।

সব কিছু ঠিক থাকলে কিছুক্ষণ এর মধ্যেই আপনি আপনার সাইটে গুগল অ্যাডসেন্স এর অ্যাড দেখতে পারবেন।

বিঃদ্রঃ কখনোই নিজের ওয়েবসাইটের অ্যাডে ক্লিক করবেন না অথবা কাউকে দিয়ে ক্লিক করাবেন না।

নিজের ওয়েবসাইটের অ্যাডে নিজে ক্লিক করলে অথবা কাউকে দিয়ে ক্লিক করালে গুগল আপনার অ্যাডসেন্স অ্যাকাউন্ট ব্যান করে দিবে।

অ্যাডসেন্স থেকে আয় করার জন্য কি কি লাগবেঃ

গুগল অ্যাডসেন্স থেকে আয় করার জন্য প্রথমেই আপনার একটি ওয়েব সাইট অথবা ব্লগ লাগবে।

শুধু ব্লগ বা ওয়েব সাইট হলেই গুগল অ্যাডসেন্স পাবেন না। গুগল অ্যাডসেন্স পাবার জন্য নির্দিষ্ট কিছু নিয়মনীতি আপনাকে অবশ্যই মেনে চলতে হবে। সেই নিয়ম গুলু আমি আপনাদের ধাপে ধাপে আলোচনা করছি।

যেভাবে নতুন ব্লগে গুগল অ্যাডসেন্স অনুমোদন পাবেন

(১) প্রথমে আপনার ব্লগ বা ওয়েব সাইটকে একটি আকর্ষণীয় স্টাইলিশ লুক দিতে হবে। হিবিজিবি ডিজাইন হলে চলবেনা। ডিজাইন হউক সাদামাটা কিন্তু হিবিজিবি জেনো না হয়। সেই দিকে অবশ্যই নজর রাখবেন।

(২) আপনি যে বিষয় ভালো জানেন এবং বোঝেন, সেই বিষয়ের উপর ভিত্তি করে আপনার ওয়েব সাইটটি তৈরি করুন।

(৩) আপনার ওয়েব সাইট তৈরি হয়ে গেলে, যেকোনো এক বিষয়ের উপর আর্টিকেল লেখা শুরু করে দিন এবং আপনার ওয়েব সাইটটি আপনি যে বিষয়ের উপর ভিত্তি করে বানিয়েছেন সেই বিষয়ের উপর প্রচুর তথ্য দিয়ে সমৃদ্ধ করতে থাকুন।

(৪) সবসময় অন্যের ওয়েব সাইটের আর্টিকেল কপি পেস্ট থেকে বিরত থাকুন। কেনোনা গুগল কপি পেস্ট সাইটকে গুগল অ্যাডসেন্স এর অনুমোদন দেয় না। তাই যেটুকু সম্ভব ইউনিক আর্টিকেল লিখতে চেষ্টা করুন।

(৫) গুগল ফ্রি ব্লগ সাইটকে কম মূল্যায়ন করে। তাই সহজে Google Adsense পাওয়ার জন্য একটি টপ লেবেল ডোমেইন যেমনঃ (.com, .net, .org) নির্বাচন করুন।

স্বল্পমূল্যে (.com, .net, .org) ডোমেইন কেনার জন্য এবং ওয়েব সাইট তৈরির জন্য  আমার সাথে যোগাযোগ করুন।

(৬) আপনার ওয়েব সাইটটি ইউনিক আর্টিকেল দিয়ে মোটামুটি ভাবে সমৃদ্ধ হলে আপনার সাইটকে গুগলে সাবমিট করুন।

(৭) গুগল অ্যাডসেন্স পাওয়ার জন্য আপনার সাইটে প্রতিদিন কমপক্ষে ১ হাজার ভিজিটর আনতে হবে। তাই ভিজিটর পাওয়ার জন্য আপনার সাইটের এসইও অর্থাৎ সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন করুন এবং আপনার ওয়েব সাইটের পোষ্টগুলু সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন।

যদিও এডসেন্স পেতে ভিজিটর কোন ফ্যাক্ট নয়। তবে ভিজিটর না থাকলে এডসেন্স দিয়ে কি করবেন?

গুগল অ্যাডসেন্স সম্পর্কে আমার জানা তথ্যগুলো আপনাকে জানিয়ে দিয়েছি। কমেন্টে আপনার মতামত জানাতে ভুলবেন না।

This Post Has 2 Comments

  1. Abdul Azim

    Good

    1. admin

      ধন্যবাদ ভাই।। আপনাদের একটি কমেন্ট আমার জন্য অনুপ্রেরণা। আপনারা পাশে থাকলে আশাকরি অনেকদূর এগিয়ে যেতে পারব

Leave a Reply